• মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:১৩ অপরাহ্ন |
  • English Version
ব্রেকিং নিউজ :
জামালপুরে সৎ ভাইকে কুপিয়ে হত্যা-আটক ৩ জামালপুরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সামাজিক সম্প্রীতির সমাবেশ অনুষ্ঠিত জামালপুরে জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে ভলিবল ফাইনালে সিংহজানী বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ান জামালপুরে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের মানববন্ধন মাদারগঞ্জে  মির্জা আজমের জন্মদিনে এতিমদের মাঝে ছাত্রলীগের খাবার বিতরণ  জামালপুরে একই দিনে পৃথক ঘটনায় ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার জামালপুরে  সারের কোন সংকট নেই -জেলা প্রশাসক শ্রাবস্তী রায় জামালপুরে অতিরিক্ত ২ হাজার ৫ শ মেট্রিকটন সার বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে— জেলা প্রশাসক শ্রাবস্তী রায় মাদারগঞ্জে ওয়ারেন্টের ৩ আসামী গ্রেফতার  জামালপুরে স্কুল ভিত্তিক দলগত দাবা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ

১২ দিনেও চালু হয়নি জামালপুর পিসিআর ল্যাব

স্টাফ রিপোর্টার
১২ দিনেও চালু হয়নি জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে স্থাপিত আরটি পিসিআর ল্যাব। ল্যাব বন্ধ থাকায় করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হচ্ছে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। এতে রিপোর্ট পেতে অতিরিক্ত সময় লাগছে। ফলে ভোগান্তিতে পড়েছে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করতে দেওয়া মানুষ।
জেলা ভিত্তিক নমুনা পরীক্ষা করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ে অব্যবহৃত থাকা পিসিআর মেশিনটি জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করে। গত ১২ মে নমুনা পরীক্ষার মধ্য দিয়ে এই ল্যাবের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। উদ্বোধনের পর ১৫ দিনে এই ল্যাবে ৮৬১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। গত ২৭ মে যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে ল্যাবটি বন্ধ হয়েছে। মাত্র ১৫ দিনেই পিসিআর মেশিন নষ্ট হওয়ায় এর মান নিয়েওে প্রশ্ন উঠেছে।
জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের ল্যাব ইনচার্জ অধ্যাপক এ. কে. এম. মুছা জানান, প্রকৌশলীরা চেষ্টা করেও পিসিআর মেশিনটি সচল করতে পারেনি। ল্যাবটি সচলের চেষ্টার পাশাপাশি নতুন একটি পিসিআর মেশিনের জন্য গত ১ জুন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ডিজি বরাবর চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে। নতুন মেশিন পাবার পর এই ল্যাবের কার্যক্রম শুরু হবে।
চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশ জানান, পিসিআর মেশিনটি যে কোম্পানীর জার্মানীর সেই কোম্পানীর সাথে যোগাযোগ হচ্ছে। আগামী ২/৩দিনের মধ্যে চালূ হবে বলে আশা করছেন তিনি।
জার্মানের ‘এনালাইটিক্যাল জেনা’ নামে একটি কোম্পানীর কাছে ২০১৬ সালে পিসিআর মেশিনটি আমদানি করে বাংলাদেশের ইনভেন্ট টেকনোলজি লিমিটেড। ইনভেন্ট টেকনোলজি লিমিটেড এর একজন কর্মকর্তা (ব্যবস্থাপক) সেলিম আল দ্বীন জানান, জার্মানের ‘এনালাইটিক্যাল জেনা’ নামে একটি কোম্পানীর কাছে ২০১৬ সালে পিসিআর মেশিনটি কেনা। মেশিনটি তাদের কাছে ্একজন ক্রয় করে। ব্যবহার না হলেও পরে মেশিনটি হাতবদল হয়ে যায় চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেখানেও এটা ব্যবহার করা হয় না। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্স বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সেটি জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজকে দেয় করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য। মেশিনটি ত্রুটির খবর পেয়ে তারা দুইবার প্রকৌশলী পাঠান। প্রকৌশলীরা চেষ্টা করেও ত্রুটি মুক্ত করতে পারেননি। মেশিনটি দীর্ঘদিন ব্যবহার না করায় তা ড্যামেজ হয়েছে। জার্মানের কোম্পানীর সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে, ইনভেন্ট টেকনোলজি লিমিটেড আরো ৮টি পিসিআর মেশিন আমদানী করছে। চলতি মাসের ১৫/১৬ তারিখে তাদের মেশিন দেশে আসবে। প্রয়োজনে জামালপুর ল্যাবের কার্যক্রম চালানোর জন্য নতুন একটি মেশিন পাঠানো হবে।
জামালপুর শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের প্রকল্প পরিচালক ডা. মোশায়ের উল ইসলাম জানান, জার্মানিদের পরামর্শ নিয়ে ঢাকা থেকে আসা প্রকৌশলীরা চেষ্টা করেন ত্রুটি মুক্ত করতে। কিন্তু না পারায় মন্ত্রণালয়ের কাছে নতুন একটি পিসিআর মেশিন চাওয়া হয়েছে।
জামালপুরের সিভিল সার্জন ডা. প্রণয় কান্তি দাস বলেন, পিসিআর ল্যাব পরিচালনা করেন শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ। ল্যাব সচল থাকলে নমুনা আরো বেশি পরীক্ষাসহ দ্রুত সময়ে রিপোর্ট দেয়া যেতো। তারপর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি ময়মনসিংহ থেকে যত তাড়াতাড়ি রিপোর্টগুলো আনা যায়।
জামালপুর পরিবেশ রক্ষা আন্দোলেন সভাপতি জাহাঙ্গীর সেলিম জানান, যখন করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে ঠিক তখনই ল্যাবটি বন্ধ হয়েছে। এখান থেকে প্রতিদিন নমুনার রিপোর্ট পাওয়া যেতো। এখন ফল পেতে বিলম্ব হওয়ায় নমুনা দেয়া ব্যক্তি কোনো প্রকার স্বাস্থ্য বিধি না মেনে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এতে ঝুঁকিতে পড়ছে আক্রান্ত পরিবার ও প্রতিবেশীরা।
জামালপুর জেলার ২৬ লাখ মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা চিন্তা করে এ ল্যাবটি স্থাপন করা হয়।
জামালপুরের সিভিল সার্জন ডা. প্রণয় কান্তি দাস জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জামালপুরে ১২ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় সনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৩৪ জনে। করোনাভাইরাস মুক্ত হয়ে এই জেলায় সুস্থ্য অবস্থায় বাড়ি ফিরেছেন ১৪১ জন। করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে জামালপুরে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে দুই নারীসহ ৪ জনের। জামালপুরে এ পর্যন্ত সনাক্ত হওয়াদের মাঝে ২৫ জন চিকিৎসক ও ১৬ জন নার্স সহ মোট ৮৯ জন স্বাস্থ্যকর্মী।
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দ্রুত পিসিআর ল্যাব চালুর দাবি জানিয়েছেন জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান এবং জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম.এ জলিল ও সাধারন সম্পাদক মুকুল রানা।

 

লুৎফর রহমান


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।