• শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:১৮ পূর্বাহ্ন |
  • English Version
ব্রেকিং নিউজ :

জামালপুর পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় ইজিবাইক চুরির ০২ ঘন্টার মধ্যে – ইজিবাইক  উদ্ধার, ০২ চোর গ্রেফতার 

এম.এফ এ মাকামঃ
জামালপুর পুলিশ সুপার নাসির উদ্দিন আহমেদ এর নির্দেশনায় ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী শাহনেওয়াজ এর নেতৃত্বে সদর থানা পুলিশের বিশেষ টিম ইজিবাইক চুরির ০২ ঘন্টার মধ্যে চুরি যাওয়া ইজিবাইক উদ্ধার করেছে। এ সময় এই চুরির সাথে জড়িত ০২ ইজিবাইক  চোরকে গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ।
মামলা ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়,
গত-১৭ মার্চ রাত  সারে দশটার দিকে জামালপুর সদরের  তিতপল্লা ইউনিয়নের জামতলা বাজার রাস্তার উপর তারার ভিটা গ্রামের মোঃ জামাল উদ্দিন এর ছেলে ইজিবাইক চালক জিয়াউল হক উপফে কালু (২৮)  পুলিশের পরিচয় দিয়ে কাগজ দেখাতে বললে চালক কাগজ আনতে গেলে চোর চক্র কৌশলে তার ইজিবাইক টি চুরি করে নিয়ে যায়্।
গাড়িচালক ফিরে এসে তার ইজিবাইক না পেয়ে নিকটস্থ নারায়ণপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ কে ঘটনা টি জানালে পুলিশ সক্রিয় হয়ে বিভিন্ন দিকে অভিযান শুরু করে এবং রাত ১২ঃ ৩০ টার সময় পাশ্ববর্তী কেন্দুয়া ইউনিয়নের কুমারপাড়া এলাকায়  অভিযান করে ইজিবাইক চোর  ছোট আড়ং হাটি গ্রামের মিয়ার উদ্দিনের ছেলে  মোঃ রমিজল  ও ভোলা জেলার ‍উত্তর ফরাসগঞ্জ এলাকার আল ইসলাম হাওলাদার এর ছেলে মোঃ বিল্লাল হোসেন (৩৬), কে গ্রেফতার করে এবং তাদের হেফাজত হতে চোরাই ইজিবাইক টি উদ্ধার করা করে।
 এই ঘটনায় জামালপুর থানার মামলা নং- ৫১ তারিখ – ১৮/০৩/২৩ ধারা- ৩৭৯/৪১১ পেনাল কোড রুজু করা হয়েছে।
জামালপুর সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ কাজী শাহনেওয়াজ জেএমনিউজ ২৪ ডট কমকে জানান,বর্তমান জামালপুরের পুলিশ সুপার নাসির উদ্দিন আহমেদ স্যারের চৌকশ নেতৃত্বে অপরাধ দমনে সদর থানা পুলিশ চুরি ,ছিনতাই ও অপরাধ দমনে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।আর তারই অংশ হিসেবে চরি যাওয়া ইজিবাইকটি মাত্র ২ ঘন্টার মাধ্যমে উদ্ধার করা হয়েছে। আসামীদের আসামি দের ০৭ ( সাত) দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন সহ কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।
 উল্লেখ্য , ০২ নং আসামী বিল্লাল হোসেনের বিরুদ্ধে কেরানীগঞ্জ থানায় দ্রুত বিচার আইনের মামলা রয়েছে।
এ বিষয়ে জামারপুরের পুলিশ সুপার নাসির উদ্দিন আহমেদ জেএম নিউজ ২৪ কে জানান,অপরাধের ব্যপারে জামালপুর জেলা পুলিশ জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরন করে চলেছে।অপরাধীদের কোন ক্রমেই ছাড় দেওয়া হবে না । জামালপুর সদর থানা বিশেষ টিম কাজ করে মাত্র ২ ঘন্টার মধ্যে আসামী ধরতে সক্ষম হয়েছে। এদের জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে ইজি বাইক চোর চক্রের অন্যান্য সদস্যদের ধরতে পুলিশ বিশেষ ভাবে তৎপর রয়েছে।
সেই সাথে আধুনিক অপরাধ মুক্ত স্মার্ট জামালপুর জেলা গড়তে সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।